বসন্ত বরণ ও পিঠা উৎসবে বক্তব্য রাখছেন সাবেক প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপিকা জিন্নাতুন্নেসা তালুকদার
মাননীয় জেলা প্রশাসক জনাব এস. এম. আব্দুল কাদের "বঙ্গবন্ধু কর্নার"- এর পরিদর্শন বহিতে মতামত লিখছেন
বঙ্গবন্ধু কর্নার স্থিরচিত্র পরিদর্শনরত শিক্ষার্থীরা
বঙ্গবন্ধু কর্নারে অধ্যনরত শিক্ষার্থীরা
বঙ্গবন্ধু কর্নারে অধ্যনরত শিক্ষার্থীরা
বঙ্গবন্ধু কর্নারে অধ্যনরত শিক্ষার্থীরা
জেল হত্যা দিবস ২০২০ পালন
বসন্ত বরণ ও পিঠা উৎসব

রাজশাহী বঙ্গবন্ধু কলেজে স্বাগতম

প্রেক্ষাপট:

শিক্ষা নগরী রাজশাহী, শান্তির নগরী রাজশাহী। শিক্ষা আর শান্তির নগরী রাজশাহীতে প্রায় সকল মনিষী, সংস্কৃতিসেবী, রাজনীতিবিদ, সমাজসেবীর নামে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বা ছাত্রাবাসের নামকরণ হলেও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতি ও কর্মকান্ডকে সমুন্নত রাখতে তাঁর নামে কোন ধরনের প্রতিষ্ঠান ছিল না। এ বিষয়টিকে সামনে নিয়ে রাজশাহীর প্রথিতযশা শিক্ষাবিদ, রাজনীতিবিদ, সমাজসেবীগণ ০৮/১২/১৯৯৪ তারিখে এক সভায় ‘‘ বঙ্গবন্ধু কলেজ রাজশাহী ’’ নামে একটি উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ার সিদ্ধান্ত নেন।

‘‘ বঙ্গবন্ধু কলেজ রাজশাহী ’’ স্থাপন প্রক্রিয়ার সাথে সম্পৃক্ত বা মূল উদ্দ্যোক্তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন রাজশাহী বিশ্ববিধ্যালয়ের বাংলা বিভাগের শিক্ষক-লেখক জনাব প্রফেসর আব্দুল খালেক (পরবর্তীতে তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইচ-চ্যান্সেলর পদ অলংকৃত করেন), রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক জনাব প্রফেসর আবুল ফজল (প্রাক্তন ট্রেজারার, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়), রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএস এর প্রাক্তন পরিচালক জনাব জিয়াদ আলী, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণ রসায়ন বিভাগের শিক্ষক জনাব প্রফেসর ডঃ মু. কায়েস উদ্দীন ( তিনি পরবর্তীতে কুষ্টিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইচ-চ্যান্সেলর এর দায়িত্ব পালন করেন), বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ জনাব এ্যাডভোকেট এ.এইচ.এম.খায়রুজ্জামান লিটন (মাননীয় সাবেক মেয়র রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের), রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিপি জনাব এ্যাডভোকেট নূরুল ইসলাম ঠান্ডু ( বর্তমানে তিনি বরেন্দ্র উন্নয়ন কর্র্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান হিসেবে কর্মরত), রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারম্যান মরহুম জনাব আফসারুজ্জামান, প্রাক্তন সংসদ সদস্য জনাব শাহ সিরাজুল ইসলাম, রাজশাহী নিউ গভঃ ডিগ্রী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মরহুম জনাব বেলায়েত আলী, রাজনীতিবিদ জনাব নেসার আহমেদ, রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের প্রাক্তন কলেজ পরিদর্শক জনাব শামসুল হক কোরায়েশীসহ একদল তরুন কর্মোদ্দীপ্ত উদ্দোক্তা।

উক্ত সভায় জনাব শামসুল হক কোরায়েশীকে সভাপতি ও জনাব মোঃ আব্দুর রাজ্জাককে অধ্যক্ষ করে কলেজটির প্রথম কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করা হয়। ১৯৯৪ সনে শিক্ষার্থী ভর্তির প্রদক্ষেপ নিলেও নানান প্রশাসনিক জটিলতার কারণে তা সম্ভব হয়নি। পরবর্তীতে সকল বাঁধা অতিক্রম করে ১৯৯৫-৯৬ শিক্ষযডপাবর্ষে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তির মাধ্যমে ১৯৯৫ সনে কলেজটির শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়। বর্তমানে কলেজটির গভর্নিং বডির সভাপতি মাননীয় সংসদ সদস্য ৫৩, রাজশাহী-২(সদর) জনাব ফজলে হোসেন বাদশা, সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পাটি ও সাবেক ভিপি, রাকসু এবং অধ্যক্ষ জনাব মোঃ নূরুল ইসলাম ও উপাধ্যক্ষ জনাব মোঃ কামরুজ্জামান।

কলেজটি উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে একাডেমিক স্বীকৃতি লাভ করে ০৪/০৫/১৯৯৭ তারিখে, ডিগ্রি অধিভুক্ত হয় ০৭/০৩/২০০০ তারিখে। উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে এমপিও ভুক্তি হয় ০১/০২/১৯৯৮ ও ডিগ্রি পর্যায়ে এমপিও ভুক্তি হয় ০১/০৪/২০০১ তারিখে বিস্তারিত…

বিভাগ সম্পর্কিত

  • সিটিজেন চার্টার
  • দপ্তর/অধিদপ্তর/সংস্থাসমূহ
  • কর্মকর্তাবৃন্দ
  • যোগাযোগ

বৃত্তি সংক্রান্ত তথ্যাবলী

  • শিক্ষাবৃত্তি বিজ্ঞপ্তি
  • শিক্ষাবৃত্তির আর্কাইভ
  • অনলাইন আবেদন
  • ফটোগ্যালারী

বার্ষিক কর্মসম্পাদন

  • নীতিমালা ও পরিপত্র
  • মন্ত্রণালয়ের কর্মসম্পাদন চুক্তি
  • অধিদপ্তর/সংস্থার চুক্তিসমূহ
  • চুক্তির কাঠামো ও অগ্রগতি